বাংলার গেজেট আন্তর্জাতিক ডেস্ক : উষ্ণ পরিবেশে আইসক্রিম গলতে শুরু করে তা আমরা সবাই জানি। কিন্তু শুধু উষ্ণতা নয়, আগুন কিংবা উচ্চ তাপের সংস্পর্শে এসেও আইসক্রিম গলছে না এমন কি কখনো শুনেছেন?
শুনে অবাক লাগলেও এটিই সত্যি! সম্প্রতি ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজার পত্রিকায় এমন আজব আইসক্রিম নিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে। প্রতিবেদনের তথ্যানুযায়ী, চীনে এ রকম আজব আইসক্রিম দেখতে পাবেন আপনি। চীনের আইসক্রিম প্রস্তুতকারী সংস্থা ‘চিসক্রিম’এমন আজব আইসক্রিম তৈরি করেছে।
ওই প্রতিষ্ঠানটির নেট সাইটে এই আইসক্রিমের একটি ভিডিও আপলোড করা হয়। ২০ সেকেন্ডের ওই ভিডিওতে দেখানো হয়েছে, আইসক্রিমে লাইটারের আগুনে গলছে না।
কোম্পানিটির আরেক ভিডিওতে দেখানো হয়েছে, ব্লো টর্চের তাপ ছাড়াও গরম কড়াইয়ের তাপেও আইসক্রিম বরফের মতো ঠান্ডাই থেকে গেছে।
ভিডিওটি দেখে সবার মধ্যেই যে প্রশ্ন উঁকি দিচ্ছে তা হলো, আইসক্রিমটি আদৌ খাওয়া স্বাস্থ্যকর হবে কি না?
এমন শঙ্কা দূর করতে অবশ্য চীনের সেই আইসক্রিম প্রস্তুতকারী সংস্থাটির পক্ষ থেকে একটি বিবৃতি প্রকাশ করা হয়। যেখানে বলা হয়েছে, আইসক্রিমটি মোটেও অস্বাস্থ্যকর নয়; বরং এটি তৈরি করতে ব্যবহার করা হয়েছে দুধ, ক্রিম, নারকেল দুধ, কনডেন্সড মিল্ক, গুঁড়ো দুধের মতো উপকারী জিনিস।
সংস্থাটি আরও জানায়, আইসক্রিম গলছে কি না বা কখন গলছে, তা দিয়ে আইসক্রিমের মান বিচার করা যায় না। তা ছাড়া তাদের সংস্থার তৈরি আইসক্রিম সাধারণত ৩-৪ মিনিটের মধ্যেই গলে যায়।
কিন্তু আগুনের সংস্পর্শে এসেও ভিডিওর ওই আইসক্রিম কেন গলছে না, তা খতিয়ে দেখবে তারা। আজব সেই আইসক্রিমটির নাম ‘সল্ট কোকোনাট আইসক্রিম’।
বাংলার গেজেট/ এম এইচ