পিরোজপুর প্রতিনিধি : পিরোজপুরের ভান্ডারিয়ায় পুলিশের ব্যাপক মাদক বিরোধী অভিযান চলছে, তবুও থেমে নেই মাদক কারবারিদের দৌরাত্ম। নিত্য নুতন কৌশল অবলম্বন করে এরা মাদক ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে। উপজেলার কয়েক টি ক্লিনিক প্রাইভেট হাসপাতাল মাদক ব্যবসায়ীদের অভয়ারণ্য হয়ে উঠেছে ।
থানা পুলিশ গত সোমবার দিবাগত রাতে লাইফ কেয়ার হসপিটাল ও ডিজিটাল ডায়াগনস্টিক ল্যাব ও জাকিয়া আশরাফ মেডিকেল ইনষ্টিটিউটসহ তিনটি পৃথক স্থানে অভিযান চালিয়ে ইয়াবা ও গাজাসহ পাঁচ মাদক কারবারীকে গ্রেপ্তার করেছে ।
পুলিশ গত সোমবার রাতে উপজেলার লাইফ কেয়ার হসপিটাল ও ডিজিটাল ডায়াগনস্টিক ল্যাব এর চার তলায় মাদক সেবন কালে ৩ পিস ইয়াবাসহ হাসিব হাসান পিয়াল (২১) নামে এক যুবকে গ্রেফতার করেছে। পিয়াল ভান্ডারিয়ার ৩ নম্বর ওয়ার্ডের নজরুল ইসলাম ছেলে।
এ ছাড়াও একই রাতে উপজেলার জাকিয়া আশরাফ মেডিকেল ইনষ্টিটিউট থেকে ইয়াবা বিক্রির প্রস্তুতিকালে মোঃ জিয়াউল ইসলাম (জিয়াদ) (৩১) কে গ্রেফতার করে পুলিশ। এ সময়ে তার কাছ থেকে ১২ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। সে ওই মডিকেল ইনস্টিটিউট এর মালিক এবং কম্পিউটার স্কুলের, পরিচালক । সে দক্ষিণ শিয়ালকাঠি মহল্লার মৃত মাওলানা আশরাফ আলী পাহলোয়ান এর ছেলে।
এ ছাড়াও উপজেলার লিয়াকত মার্কেট এলাকা থেকে গাঁজাসহ আঃ মাজেদ খান (৩২), জিহাদ ফরাজী (২২), সাব্বির মিয়া (২১) নামে তিন জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এসময়ে তাদের কাছ থেকে ১০ গ্রাম গাঁজা উদ্ধার করা হয়েছে।
ভান্ডারিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মো. মাসুমুর রহমান বিশ্বাস জানান, তাদের বিরুদ্ধে মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে পৃথক ৩টি মামলা দায়ের করা হয়েছে।
বাংলার গেজেট/ এম এইচ