যশোর প্রতিনিধি : টানা ৯ দিনের ছুটির কবলে পড়েছে স্থলবন্দর বেনাপোল পেট্টাপোল। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরের পর থেকেই শুরু হয়েছে অঘোষিত ছুটি। ফলে দীর্ঘ ছুটিতে বন্দর এলাকায় বাড়ছে শতশত পন্যবাহি ট্রাকের সারি।
এবার রোজা ৩০টি হলে ঈদ হবে ৩ মে মঙ্গলবার। ফলে ঈদের ছুটি ২ মে থেকে শুরু হয়ে শেষ হবে ৪ মে বুধবার। অন্যদিকে ১ মে রবিবার শ্রমিক দিবসে সরকারি ছুটি। আর আগের দিন ৩০ এপ্রিল শনিবার, ২৯ এপ্রিল শুক্রবার। ফলে ২৯ এপ্রিল থেকে ৪ মে পর্যন্ত টানা ৬ দিনের ছুটি। অন্যদিকে ঈদের ছুটির পর ৫ মে বৃহস্পতিবার। তারপর ৬ ও ৭ মে (শুক্র ও শনিবার) সাপ্তাহিক ছুটি। ফলে চাকরিজীবীরা ৫ মে একদিন ছুটি পেলে মোট ৯ দিন ছুটি কাটাতে পারবেন ঈদে। অনেকেই ছুটি নিয়ে ছেড়েছেন কর্মস্থল। ফলে গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরের থেকে বন্দর ও কাস্টমসের কাজকর্ম কমতে শুরু করেছে। তবে পাসপোর্ট যাত্রী যাতায়াত রয়েছে স্বাভাবিক। ছুটির দিনেও পাসপোর্ট যাত্রী চলাচল স্বাভাবিক থাকবে বলে জানিয়েছে বেনাপোল স্থলবন্দর উপ পরিচালক আব্দুল জলিল।
বাংলাদেশ ভারত চেম্বার অব কমার্সের পরিচালক মতিয়ার রহনান বলেন টানা বন্ধে আমদানি রফতানি বানিজ্যে কিছুটা প্রভাব পড়বে। তবে ছুটি শেষে বন্দর ব্যাবহারকারীরা ক্ষতি পুষিয়ে নিতে রাতদিন কাজ করবেন বলে জানান তিনি।
বাংলার গেজেট/ এম এইচ