চট্রগ্রাম প্রতিনিধি : বিষধর সাপের অনন্য এক সংগ্রহশালা গড়ে উঠেছে চট্টগ্রামে। যেখানে আছে ৯ জাতের ৩ শতাধিক সাপ। রীতিমতো দুধকলা দিয়ে গোখরা, রাসেল ভাইপার, কেউটের মতো বিষধর সাপ পোষা হচ্ছে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজের ভেনম রিসার্চ সেন্টারে। তবে ভয়ের কিছু নেই, মূলত সাপের দংশনের প্রতিষেধক তৈরির জন্যই ব্যতিক্রমী এ প্রকল্প।
২০১৮ সালে মাত্র পাঁচটি সাপ নিয়ে যার যাত্রা শুরু করলেও বর্তমানে ভেনম রিসার্চ সেন্টারে আছে ৯ প্রজাতির তিন শতাধিক সাপ। ডব্লিউএইচওর নির্দেশনা মেনে যেগুলো ধরে আনা হয়েছে দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে। কিছু সাপের বাচ্চা ফুটেছে এখানেই।
পরিচর্যা, খাবার দেয়া সবই করেন সেন্টারের ৮ গবেষক এবং সহযোগী শিক্ষার্থীরা। ভেনম রিসার্চ সেন্টারের সহ গবেষক আবদুল ওয়াহেদ চৌধুরী জানান, মাসে একবার সাপগুলো থেকে বিষ সংগ্রহ করা হয়। যা দিয়ে চলে সাপে দংশনের প্রতিষেধক তথা এন্টি ভেনম তৈরির গবেষণা।
মূখ্য গবেষক ডা. অনিরুদ্ধ ঘোষ জানালেন, ৫ বছর মেয়াদী এ প্রকল্পের মেয়াদ চলতি বছরে শেষ হওয়ার কথা থাকলেও তা আরও পাঁচ বছর বাড়ানো হয়েছে।
বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তথ্যমতে, বাংলাদেশে প্রতি বছর সাপের দংশনের শিকার হন সাড়ে ৫ লাখের বেশি মানুষ, মারা যায় অন্তত ৬ হাজার জন।
বাংলার গেজেট / এম এইচ