বাংলার গেজেট প্রতিবেদক : দেশে ক্রমেই বাড়ছে করোনা শনাক্তের হার। দীর্ঘদিন করোনা সংক্রমণ নিম্নমুখী ছিল। তবে গত কয়েকদিনে তা আবার ঊর্ধ্বমুখী। স্বাস্থ্য অধিদফতরের সবশেষ তথ্যানুযায়ী, শুক্রবার (১৭ জুন) সকাল ৮টা পর্যন্ত আগের ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৪৩৩ জন। তবে এই ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে কেউ মারা যায়নি।
এ নিয়ে টানা ১৮ দিন করোনায় আক্রান্ত হয়ে কারো মৃত্যু হয়নি। ফলে মোট মৃতের সংখ্যা ২৯ হাজার ১৩১ জনে অপরিবর্তিত আছে।
আজ শুক্রবার (১৭ জুন) স্বাস্থ্য অধিদফতর থেকে পাঠানো করোনাবিষয়ক নিয়মিত বুলেটিনে এ তথ্য জানানো হয়।
এনিয়ে টানা ১৩ দিন করোনা শনাক্তের সংখ্যা ঊর্ধ্বমুখী। স্বাস্থ্য অধিদফতরের তথ্যানুযায়ী, গত ২ জুন থেকে দেশে ক্রমাগত করোনা সংক্রমণ বেড়ে চলেছে। ২ জুন ২২ জন, ৩ জুন ২৯ জন, ৪ জুন ৩১ জন, ৫ জুন ৩৪ জন, ৬ জুন ৪৩ জন, ৭ জুন ৫৪ জন, ৮ জুন ৫৮ জন, ৯ জুন ৫৯ জন, ১০ জুন ৬৪ জন, ১১ জুন ৭১ জন, ১২ জুন ১০৯ জন, ১৩ জুন ১২৮ জন, ১৪ জুন ১৬২ জন, ১৫ জুন ২৩২ জন ও ১৬ জুন ৩৫৭ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়। সবশেষ ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্ত হয়েছে ৪৩৩ জনের।
এনিয়ে দেশে এ পর্যন্ত ১৯ লাখ ৫৫ হাজার ৪২৭ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হলো।
বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সবশেষ ২৪ ঘণ্টায় করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন ৯৩ জন। এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ১৯ লাখ ৫ হাজার ৭১১ জন।
সবশেষ ২৪ ঘণ্টায় ৬ হাজার ৯০১টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়। পরীক্ষা করা হয় ৬ হাজার ৯০৫টি নমুনা। পরীক্ষার বিপরীতে শনাক্তের হার ৬ দশমিক ২৭ শতাংশ। আগেরদিন শনাক্তের হার ছিল ৫ দশমিক ৭৬ শতাংশ।
২০১৯ সালের শেষে চীনের উহানে প্রথম করোনা সংক্রমণ ধরা পড়ে। এরপর কয়েক মাসের মধ্যে এ ভাইরাস সারা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়ে। দেশে প্রথম করোনা শনাক্ত হয় ২০২০ সালের ৮ মার্চ। আর প্রথম মৃত্যু হয় একই বছরের ১৮ মার্চ।
বাংলার গেজেট/এম এইচ