পটুয়াখালীতে টাকা চুরির অপবাদ শিকলে বেঁধে কিশােরকে নির্যাতন

0
4


পটুয়াখালী প্রতিনিধি : টাকা চুরির অপবাদ গাছর সাথ শিকল বেঁধে মুন্না (১৬) নামের এক কিশােরক নির্যাতন করা হয়েছে ঘটনাটি ঘটেছে পটুয়াখালীর গলাচিপা উপজলার সদর ইউনিয়নর বােয়ালিয়া গ্রামে। টানা তিনদিন (৯ মে থেকে ১১ মে) দফায় দফায় মারধরের পর থেকে নিখোঁজ রয়েছে ওই কিশাের। মুন্না ওই এলাকার শাহাজাহন কমান্ডারের ছেলে। ইতােমধ্যে ছবি সামাজিক যােগাযােগ মাধ্যমে ফেসবুক ভাইরাল হয়েছে এ ঘটনাটি। এ ঘটনায় জড়িত থাকার দায়ে তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছেন থানা পুলিশ।  
প্রকাশিত ছবিতে দেখা যায়, কিশাের মুন্নাকে একটি গাছের সাথে লােহার শিকল বাঁধ রাখা হয়েছে। বােয়ালিয়া এলাকার হজরত আলী নামে এক ব্যক্তি তাকে মারধর করছেন। এ সময় আশপাশের লােকজন দাড়িয়ে বিষয়টি দেখছেন। ছবিতে মুন্নার শরীর রক্তাত জখম চিহ্ন দেখা যায়।
মুন্নার মা হাসিনা বেগম জানান, তারা ঢাকায় থাকেন, মুন্না বাড়িতে থাকত। ৮৫ হাজার টাকা চুরির অপবাদ তার ছেলে মুন্নাকে ধরে নিয়ে যাওয়া হয়েছে এমন সংবাদ পেয়ে তারা বাড়িতে এসেছেন। গত ৯ মে থেকে ১১ মে মধ্যরাত পর্যন্ত হজরত আলী, ফেরদৌস, মমতাজ এবং তানিয়া দফায় দফায় অমানবিন নির্যাতন করেছে। এরপর থেকে তার ছেলেকে খুঁজে পাছেন না। 
গলাচিপা থানার অফিসার ইনচার্জ এম আর শওকত আনােয়ার ইসলাম জানান, ঘটনার পর ওই কিশাের কৌশলে মাটরসাইকেল যােগে পালিয়ে গেছে। ওই কিশােরকে খুজে বের করার চেস্টা চলছে। এ ঘটনায় জড়িত তিনজনক গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বাকীদের গ্রেপ্তারের চেস্টা অব্যাহত আছে।
বাংলার গেজেট/ এম এইচ