বাংলার গেজেট আন্তজার্তিক ডেস্ক : এক দশকের বেশি সময় পর প্রথম বারের মতো নেটফ্লিক্সের গ্রাহকের সংখ্যা ব্যাপক কমেছে। রাশিয়া-ইউক্রেনের যুদ্ধকে গ্রাহক হ্রাসের অন্যতম কারণ হিসেবে দাবি করছে বিশ্বের জনপ্রিয় ও অন্যতম শীর্ষ এই ভিডিও স্ট্রিমিং সেবা কর্তৃপক্ষ। খবর বিবিসির।
নেটফ্লিক্স গতকাল মঙ্গলবার জানিয়েছে, চলতি বছরের প্রথম তিন মাসে দুই লাখ সাবস্ক্রাইবার (ব্যবহারকারী) হারিয়েছে কোম্পানিটি।
রাশিয়া থেকে নেটফ্লিক্সের কার্যক্রম সরিয়ে নেওয়া এবং যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্যসহ প্ল্যাটফর্মটির প্রধান প্রধান বাজারে সাবস্ক্রিপশনের মূল্য বাড়ানোর পরে এত সাবস্ক্রাইবার কমার তথ্য সামনে এলো।
ইউক্রেনে সামরিক অভিযান শুরু করায় রাশিয়াকে শীর্ষ পশ্চিমা করপোরেটদের বর্জনের সঙ্গে যোগ দিয়েছিল নেটফ্লিক্সও।
সামনের দিনে আরও সাবসক্রাইবার কমার সতর্কবার্তাও দিয়েছে নেটফ্লিক্স। এবং সেইসঙ্গে ইঙ্গিত দিয়েছে যে, যেসব অ্যাকাউন্ট অবৈধভাবে ব্যবহার করা হচ্ছে, সেগুলো চিহ্নিত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এর ফলে নতুন সাবস্ক্রিপশন বাড়বে বলে মনে করছে নেটফ্লিক্স কর্তৃপক্ষ।
ইউক্রেনে যুদ্ধের পরিপ্রেক্ষিতে রাশিয়া থেকে কার্যক্রম সরিয়ে নেয় নেটফ্লিক্স। ওই পদক্ষেপের কারণে সাত লাখ গ্রাহক হারানোর দাবি করছে প্ল্যাটফর্মটি।
নেটফ্লিক্স আরও জানিয়েছে, সাবস্ক্রিপশনের দাম বাড়ানোর পরে যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডায় ছয় লাখ সাবস্ক্রাইবার কমে গেছে।
এ ছাড়া নেটফ্লিক্সকে সাবেক রুশ গ্রাহকদের করা মামলার মুখেও পড়তে হয়েছে।
নেটফ্লিক্সের বিরুদ্ধে মামলাকারী সংস্থাটি বলছে—রাশিয়ায় পরিষেবা বন্ধ করে গ্রাহকদের অধিকার লঙ্ঘন করা হয়েছে।
এর আগে ২০১১ সালের এক ত্রৈমাসিকে অনেক গ্রাহক হারিয়েছিল নেটফ্লিক্স। তবে, এত গ্রাহক হারানো নেটফ্লিক্সের এখনও বিশ্বব্যাপী ২২ কোটির বেশি সাবস্ক্রাইবার রয়েছে।
বাংলার গেজেট/ এম এইচ