বাংলার গেজেট প্রতিবেদক : খুলনার বটিয়াঘাটায় দুই খালাতো বোনকে গণধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এক বোনের ২ বছরের শিশুকে হত্যার ভয় দেখিয়ে তাদের যৌন নির্যাতন করা হয়। এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচার দাবি করেছেন স্বজনরা।
স্বজনরা জানান, গত শনিবার রাতে বটিঘাটায় বাসায় ছিলেন দুই খালাতো বোন। কাজের জন্য গৃহকর্তা বাইরে থাকার সুযোগে হঠাৎ সেখানে হানা দেয় ৬-৭ জন বখাটে। এ সময় অস্ত্রের মুখে জিম্মি করা হয় এক বোনের শিশু সন্তানকে। তাকে হত্যার ভয় দেখিয়ে দুই বোনকে ধর্ষণ করে পালিয়ে যায় তারা। পরদিন স্বজনরা বাড়ি ফিরলে বিষয়টি জানাজানি হয়।
ভুক্তভোগীর মা বলেন, ওরা ৭-৮ জন আসে। ওদের সবার মুখে রুমাল আর হাতে ছুরি ছিল। বোনের মেয়ে পা জড়িয়ে ধরে বলে আমার বোনটা ছোট ওকে কিছু করিস না। যা করার আমার সঙ্গে কর তারপরও ওই ছোট বাচ্চার গলায় ছুরি ধরে একে একে যৌন নির্যাতন চালানো হয়।
গতকাল রোববার বিকেলে দুই নির্যাতিতাকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য খুলনা মেডিকেলের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে নেওয়া হয়। এ ব্যাপারে সব ধরনের আইনি সহয়তা দেওয়ার আশ্বাস দিয়েছে পুলিশ।
খুলনা বটিয়াঘাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. জাহিদুর রহমান বলেন, আমরা প্রকৃত ঘটনা যাচাই-বাছাই করছি। ঘটনা অনুযায়ী আমরা আইনগত ব্যবস্থা নেব।
নির্যাতিতা দুই বোনের মধ্যে একজনের বয়স ১৩ বছর আরেকজন তালাকপ্রাপ্ত নারী।
বাংলার গেজেট/ এম এইচ